বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ০৩:৫৭ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

বিশ্বের বৃহত্তম ১০ বিমানবন্দর

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২৬৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: উড়োজাহাজ আধুনিক যুগের অন্যতম ও গুরুত্বপূর্ণ একটি আবিষ্কার। হাজার হাজার মাইল পথ কয়েক ঘণ্টার মধ্যে পাড়ি দিয়ে পৃথিবী এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে ভ্রমণ করা যায় এর মাধ্যমে। তবে পৃথিবীতে এমন কিছু দেশ রয়েছে যেখানে কোনও বিমানবন্দর বা এয়ারপোর্ট নেই।

১. তুরস্কের ইস্তাম্বুলে বিশ্বের সবচেয়ে বড় বিমানবন্দর যাত্রা শুরু করে ২০১৮ সালে। বিমানবন্দরটিতে প্রতিদিন ৩৫০টি গন্তব্যের জন্য বিমান ২০০০ বার উঠানামা করে। লিম্যাক, কোলিন, সেনগিজ, মাপা ও ক্যালন এই পাঁচটি বৃহৎ কোম্পানির মিলিত কনসোর্টিয়াম এই বিমানবন্দরটি নির্মাণ করে।
২. হার্টসফিল্ড-জ্যাকসন এয়ারপোর্ট, আটলান্টা, যুক্তরাষ্ট্র: যাত্রী সংখ্যার বিচারে আটলান্টাকে কেউ পেছনে ফেলতে পারবে না। ২০১৭ সালে প্রায় ১০ কোটি ৪০ লাখ মানুষ এই বিমানবন্দর দিয়ে যাতায়াত করেছেন। অন্য কেউ ১০ কোটি পর্যন্তই পৌঁছাতে পারেনি।
৩. বেইজিং ক্যাপিটাল ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, চীন: এই বিমানবন্দর ২০১৭ সালে ব্যবহার করেছেন ৯ কোটি ৫৮ লাখ মানুষ। ২০০৮ অলিম্পিকের আগে তৈরি করা হয়েছিল এই বিমানবন্দরটি।
৪. দুবাই ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, আরব আমিরাত: ২০১৭ সালে দুবাই বিমানবন্দর ব্যবহার করেছেন ৮ কোটি ৮০ লাখেরও বেশি মানুষ। মজার ব্যাপার হলো, এর মধ্যে ৮ কোটি ৭৭ লাখ মানুষই আরবের নন। অনেকেই এই বিমানবন্দরে শপিং করতে ভালোবাসেন।
৫. টোকিও হানেদা এয়ারপোর্ট, জাপান: জাপানের রাজধানী টোকিও’র এই বিমানবন্দরটি বছরে প্রায় ৮ কোটি ৫৪ লাখ মানুষ ব্যবহার করেন।
৬. লস এঞ্জেলেস ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, যুক্তরাষ্ট্র: ছুটিতে ক্যালিফোর্নিয়া গেলে মোটামুটি নিশ্চিত যে, আপনি এই বিমানবন্দরেই নামবেন। আটলান্টার মতো না হলেও বছরে প্রায় সাড়ে আট কোটি মানুষ এটি ব্যবহার করছেন।
৭. ও’হারে ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, শিকাগো, যুক্তরাষ্ট্র: শিকাগোতেও শান্তি নেই জার্মান ফুটবল তারকা বাস্টিয়ান শোয়াইনস্টাইগারের ফ্যানদের। কারণ, শিকাগো ফায়ারে যোগ দেয়া এই সাবেক বায়ার্ন ও ম্যানইউ তারকাকে বিমানবন্দরে খুঁজে পেতেই খবর হয়ে যাবে। কারণ, এই বিমানবন্দর দিয়ে চলাফেরা করা ৭ কোটি ৯৮ লাখ যাত্রীর একজন তিনি।
৮. লন্ডন হিথ্রো, যুক্তরাজ্য: লন্ডনের সবচেয়ে ব্যস্ত বিমানবন্দর হিথ্রো। ফি বছর এখান থেকে ৭ কোটি ৮০ লাখ মানুষ বিমানে ওঠানামা করেন। আর মাত্র দু’টি রানওয়ে দিয়েই বিমানবন্দরটি তা ম্যানেজ করে।
৯. হংকং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, চীন: ২০১৭ সালে এই বিমানবন্দরটি ব্যবহার করেছেন ৭ কোটি ২৬ লাখ ৭০ হাজার যাত্রী।
১০. সাংহাই পুদং ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, চীন: সাংহাইয়ে দু’টি বড় এয়ারপোর্ট আছে। এর একটি এই পুদং। এখানে বছরে ৭ কোটি যাত্রী বিমানে ওঠানামা করেন।
সূত্র: ডয়েচে ভেলে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!