মঙ্গলবার, ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪:৪৬ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

কারাগারে মা হলেন নুসরাত হত্যার আসামি মনি

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : রবিবার, ২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯
  • ২১২ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

ফেনী জেলা কারাগারে বন্দি থাকা নুসরাত হত্যা মামলার আসামি কামরুন নাহার মনি কন্যা সন্তানের মা হয়েছেন। সে নুসরাত হত্যা মামলায় অভিযুক্ত হয়ে গত ছয় মাস ধরে কারাগারে বন্দি আছেন।

ফেনী কারাগারের জেলার দিদারুল আলম জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে বন্দি কামরুন নাহার মনির প্রসব বেদনা শুরু হলে দ্রুত তাকে ফেনী জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। হাসপাতালে রাত সাড়ে ১২টায় মনি কন্যা সন্তান প্রসব করেন। বর্তমানে মা ও মেয়ে দু’জনই সুস্থ্ আছেন।
ফেনী জেনারেল হাসপাতালে থাকা মনির মা নুরের নাহার জানান, নুসরাত হত্যা মামলায় মনি যখন গ্রেফতার হন তখন সে পাঁচ মাসের গর্ভবতী ছিলেন। আদালতে মনির আইনজীবীর আবেদনের প্রেক্ষিতে গত ৪ সেপ্টেম্বর ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তার আবু তাহেরের নেতৃত্ব গঠিত তিন সদস্যের মেডিকেল বোর্ড ২৪ সেপ্টেম্বর সন্তান প্রসবের সম্ভাব্য তারিখ দিয়ে তাকে পূর্ণাঙ্গ বিশ্রামে থাকার পরামর্শ দেন।
তিনি আরো জানান, মনি অসুস্থ্ থাকলেও নবজাতক সুস্থ্ আছে। অসুস্থ্ অবস্থায় ডাক্তার তাকে রিলিজ করে দিয়েছেন কিছুক্ষণের মধ্যে মনিকে কারাগারে নিয়ে যাবে।
ফেনী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আবু তাহের মুঠোফোনে জানান, কামরুন নাহার মনি ও নবজাতক সুস্থ্ আছে। কারা কর্তৃপক্ষ চাইলে আজকে তাদের নিয়ে যেতে পারবে।
উল্লেখ্য, সোনাগাজীর মাদ্রাসা ছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলার বিচার কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। আসামী পক্ষের যুক্তিতর্ক উপস্থাপন শেষ হলে চলিত সপ্তাহে রায়ের তারিখ ঘোষণা হতে পারে। এ মামলায় কামরুন নাহার মনি হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেছেন। মামলার অভিযোগপত্রে মাদ্রাসার সাইক্লোন সেল্টারের ছাদে যে পাঁচ আসামী নুসরাতকে হাত-পা বেঁধে আগুন লাগিয়েছে মনি তাদের একজন।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!