রবিবার, ১৭ জানুয়ারী ২০২১, ০৬:৫৩ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

গাংনীতে প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হলে কলেজে ছাত্রীকে জোরপূর্বক শ্লীলতাহানির অপচেষ্টা। লম্পট আটক। মামলা দায়ের

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : শুক্রবার, ৪ অক্টোবর, ২০১৯
  • ২৫০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

গাংনী প্রতিনিধিঃ-মেহেরপুর গাংনীতে প্রেমের প্রস্তাবে সাড়া না দিলে প্রকাশ্য দিবালোকে কলেজে জোরপূর্বক শ্লীলতাহানির অপচেষ্টা চালিয়েছে রাব্বি (২১) নামের এক লম্পট।ছাত্রী উত্যক্তকারী শাহরিয়ার হোসেন রাব্বিকে কলেজ কর্তৃপক্ষ ও ভুক্তভোগী পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে স’ানীয় পুলিশ ক্যাম্পের ইনজার্জ এসআই অজয় কুমার গত বৃহস্পতিবার দিনগত রাত ১১ টার সময় তার নিজ বাড়ী থেকে আটক করে ক্যাম্পে পুলিশ হেফাজতে রাখে। আজ শুক্রবার সকালে গাংনী থানার ওসি ওবাইদুর রহমানের নির্দেশে থানা হেফাজতে নিয়ে আসা হয়। ডিস লাইন ব্যবসায়ী নারীলোভী লম্পট শাহরিয়ার হোসেন রাব্বি কাজীপুর বর্ডার পাড়ার রেজাউল হকের ছেলে।

ঘটনার বিবরণে জানা গেছে, গাংনীর সীমান্তবর্তী কাজীপুর ডিগ্রী কলেজের নতুন ৪ তলা বিশিষ্ট একাডেমিক ভবনে কলেজ চলাকালীন দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় কলেজের সিঁড়ি থেকে পূর্বপরিকল্পিতভাবে কলেজের ১ম বর্ষের ছাত্রী (কাজলী-ছদ্মনাম)কে জোরপূর্বক ধরে নিয়ে ৪র্থ তলার উপরের সিঁড়িতে নিয়ে (চিলে কোঠা) টানা হেঁচড়া করে এবং ছাত্রীর স্পর্শকাতর স্থানে জড়িয়ে ধরে শ্লীলতাহানির চেষ্টা চালায়। এসময় তাকে সহায়তাকারী কাজীপুরের সাজ্জাদ, ঘরামী পাড়ার মন্টুর ছেলে সা্‌ঈদ , ফরিদের ছেলে ফারুক ও হোসেন সিঁড়ির গেটে পাহারাদার হিসাবে অপেক্ষা করছিল। উদ্দেশ্য ছিল ছাত্রীটিকে পালাক্রমে ধর্ষন করার। এসময় শ্লীলতাহানির স্বীকার ছাত্রীর বান্ধবী ঝর্ণা অবস্থা বেগতিক দেখে তার ক্লাসের বন্ধু রুবেলকে বিষয়টি জানায়। রুবেল তার বান্ধবীকে উদ্ধারের জন্য পার্শ্ববর্তী তাইয়ূম আলীর সহযোগিতায় মেয়েটিকে উদ্ধার করে। ততক্ষণে লম্পট দল পালিয়ে যায়। এসময় কলেজের অধ্যক্ষ মোকাদ্দেসুর রহমানের অবর্তমানে ভাইস প্রিন্সিপাল রফিকুজ্জামান প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।কলেজে প্রকাশ্যে এরকম ঘটনায় অভিভাবকগন উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে।
ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে দোষী ব্যক্তিদের উপযুক্ত শাস্তি চেয়ে গাংনী থানায় শিশু ও নারী নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেছে। কলেজ ছাত্রীর ভাই সাহেবনগর ফিল্ড পাড়া গ্রামের ইসতিয়াক আহমেদ বাদী হয়ে মামলাটি করেন। স্থানীয় পীরতলা পুলিশ ক্যাম্পের আইসি এসআই অজয় কুমার সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে কলেজ ক্যাম্পাসে যায় এবং ঘটনার সত্যতা পাই।রাতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রাব্বিকে আটক করে। ঘটনার সাথে জড়িত সবাইকে আটক করা সম্ভব না হলেও অবিলম্বে তাদের আটক করা হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

এব্যাপারে গাংনী থানা ইনচার্জ ওবাইদুর রহমান জানান, কলেজ ছাত্রী উত্যক্তকারী রাব্বিকে আটক করা হয়েছে॥ শিশু ও নারী নির্যাতন দমন আইনের ১০(৩০) ধারায় মামলা হয়েছে। জড়িত অন্যান্যদেরকেও আটক করে আইনের আওতায় আনা হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!