রবিবার, ২৫ অক্টোবর ২০২০, ১২:০৯ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

অমর কথাসাহিত্যক মীর মশাররফ হোসেনের ১৭২তম জন্মবার্ষিকী অনুষ্ঠানের শুভ উদ্বোধন

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১৩ নভেম্বর, ২০১৯
  • ২১৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধিঃঅমর কথাসাহিত্যক মহাকাব্যিক উপন্যাস ‘বিষাদ সিন্ধু’র রচয়িতা সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেনের ১৭২তম জন্মবার্ষিকী দুই দিনব্যাপী আজ প্রথম দিনের শুভ উদ্বোধন অনুষ্ঠান পালিত হল বুধবার (১৩ নভেম্বর ২০১৯) সাহিত্যিক মীর মশাররফ হোসেন কুমারখালীর লাহিনীপাড়া গ্রামে ১৮৪৭ সালের ১৩ নভেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। তার বাবা মীর মোয়াজ্জেম হোসেন এলাকার সম্ভ্রান্ত ব্যক্তি ছিলেন। তার মায়ের নাম দৌলতুন্নেসা।

মীর মশাররফ প্রথমে জগনমোহন নন্দীর পাঠশালায় পড়াশুনা করেন। এরপর তিনি কুমারখালীর এমএন হাই স্কুল, কুষ্টিয়া হাই স্কুল ও রাজবাড়ী জেলার পদমদী হাই স্কুলে কিছুদিন পড়াশুনা করেন।

১৮৬০ সালে মীর মশাররফের মা দৌলতুন্নেসা মারা যান। সেই সময় মীরের বয়স ছিল মাত্র ১৩ বছর। এ বয়সেই তিনি সাহিত্যচর্চা শুরু করেন। সাহিত্যের সব ক্ষেত্রেই তার উজ্জ্বল স্বাক্ষর রেখে গেছেন। গল্প, উপন্যাস, নাটক, কবিতা, আত্মজীবনী, প্রবন্ধ ও ধর্মবিষয়ক প্রায় ৩৫টি বই রচনা করে গেছেন। এর মধ্যে রত্নাবতী, গৌরী সেতু, বসন্তকুমারী, নাটক জমিদার দর্পণ, সঙ্গীত লহরী, উদাসীন পথিকের মনের কথা, মদীনার গৌরব, বিষাদসিন্ধু বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য।

সাহিত্য রচনার পাশাপাশি তিনি কিছুদিন সাংবাদিকতাও করেছিলেন। প্রথমে তিনি কাঙাল হরিণাথ মজুমদারের সাপ্তাহিক গ্রামবার্তা প্রকাশিকা পত্রিকা ও কবি ঈশ্বরগুপ্তের সংবাদ প্রভাকর পত্রিকায় কিছুদিন কাজ করেন। এরপর ১৮৮০ সালে তিনি লাহিনীপাড়া হিতকরী নামের একটি পাক্ষিক পত্রিকা প্রকাশ করেন।

এদিকে মীর মশাররফ হোসেনের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে কুষ্টিয়ার কুমারখালীর লাহিনীপাড়ায় বুধবার ও বৃহস্পতিবার দুই দিনব্যাপী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে অনুষ্ঠিত আজ প্রথম দিন পালিত হলো। এর মধ্যে রয়েছে আলোচনা সভা, গ্রামীণ মেলা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা ৬টায় উৎসব আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে মীরের সাহিত্য ও কর্মময় জীবনের ওপর আলোচনা করেন, প্রধান অতিথি কুষ্টিয়া জেলার সুযোগ্য জেলা প্রশাসক জনাব আসলাম হোসেন,

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কুষ্টিয়া পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত, কুষ্টিয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জনাব মোস্তাফিজুর রহমান, বিশিষ্ট লেখক ও কলামিস্ট জনাব শেখ গিয়াস উদ্দিন আহমেদ মিন্টু, কুষ্টিয়া শিল্পকলা একাডেমীর সাধারণ সম্পাদক আমিরুল ইসলাম, কুষ্টিয়া সরকারি কলেজ এর সহকারী অধ্যাপক জনাব মীর মাহাবুব উস সাদিক, কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মনির হাসান রিন্টু, কুমারখালী উপজেলার নির্বাহী অফিসার রাজীবুল ইসলাম খান, কুমারখালী প্রেসক্লাবের সভাপতি বাবলু জোয়াদ্দার, কুষ্টিয়া আদর্শ মহাবিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল জনাব আলতাফ হোসেন।
দ্বিতীয় পর্বে কুষ্টিয়ার শিল্পকলার আয়োজনে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!