শনিবার, ২৪ অক্টোবর ২০২০, ১১:০০ অপরাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতুর ১৭টি লাইট অকেজো আলো স্বল্পতায় জনদুর্ভোগ চরমে।

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ নভেম্বর, ২০১৯
  • ২২৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

কুষ্টিয়া সদর উপজেলার হাটশ হরিপুর ইউনিয়নে ৯টা ওয়ার্ড নিয়ে প্রায় অর্ধলক্ষাধিক বাসিন্দাদের বসবাস। চারিদিকে নদী বেষ্টিত এই জনপদের মানুষ সংগ্রাম করেই বেঁচে থাকে। ভৌগলিকভাবে সংগ্রাম করে বেঁচে থাকলেও শান্তি প্রিয় এই জনপদের গল্পটা ছিলো কিছুদিন আগেও অবহেলিত। প্রমত্ত পদ্মার শাখা নদী গড়াই নদী ছিলো এই জনপদের কাছে অভিশাপ। শহর থেকে কয়েক মিটার নদীর দুরত্ব এই জনপদের বাসিন্দাদের আর্থসামাজিক জীবন যাত্রার মান একজন নাগরিকের জন্য প্রত্যেকটি অধিকার ও সুযোগ সুবিধা থেকে বঞ্চিত ছিলো। গড়াই নদীর ভরা যৌবনে স্কুল, কলেজ গামী শিক্ষার্থী অসুস্থ রোগী কোমলমতি শিশু বয়স্ক মুরুব্বী সকলেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নৌকায় খেয়া পারাপারই ছিলো শেষ ভরসা। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, কুষ্টিয়া সদর ০৩ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য জননেতা জনাব মাহাবাবুল আলম হানিফ এমপি মহোদ্বয়ের একান্ত ব্যক্তিগত প্রচেষ্টায় হরিপুর বাসীর দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবী বর্তমানে শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতু উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে হরিপুরের প্রায় অর্ধলক্ষাধিক বাসিন্দাদের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়। কৃষি জমি না থাকায় ব্যবসা নির্ভর এই জনপদের মানুষ। জীবিকার তাগিদে সূর্যোদয়ের পর থেকেই শুরু হয় কর্মজীবি মানুষদের পথচলা। কুষ্টিয়া শহরের ৮০ভাগ ব্যবসা প্রতিষ্ঠান হরিপুরের সিংহভাগ মানুষদের নিয়ে গড়ে উঠেছে। বর্তমানে শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতু দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ১০থেকে ১৫হাজার মানুষ কুষ্টিয়া শহর শহ আশেপাশের জেলায় ব্যবসা বাণিজ্য করে। সারাদিন কর্মব্যস্ততা শেষে পড়ন্ত বিকালে শুরু হয় ঘরে ফেরার পালা। শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতু এই জনপদের বাসিন্দাদের কাছে আর্শীবাদ স্বরুপ। কিন্তু কিছুদিন ধরে লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতুর সড়কের ডান ও বামপাশের ১৭টি লাইট অকেজো। যার ফলে সন্ধ্যা থেকে রাত গভীর পর্যন্ত শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতুর উপর অন্ধকারাচ্ছন্ন দেখা দেয়। এছাড়াও শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতুর নিম্ন ভোল্টেজের লাইট গুলোর আলো খুবই কম হওয়ায় হরিপুরের কয়েক হাজার বাসিন্দাদের ঘরে ফেরা মানুষদের জনদুর্ভোগের শেষ নেই। সেতুর বেশিরভাগ অন্ধকার থাকায় ভ্যান ও অটোচালকদের পড়তে হয় বিড়ম্বনায়। প্রতিনিয়ত অন্ধকারাচ্ছন্ন সেতুর উপর ঘটছে দূর্ঘটনা। সেতু অন্ধকার হওয়ায় সন্ধ্যার পর থেকে রাত গভীর পর্যন্ত উঠতি বয়সী তরুণ তরুনীদের অবাধ মেলামেশা ও বেহায়াপণা, নোংরামির সুযোগ সৃষ্টি হয়। অপ্রীতিকর পরিবেশ ও পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। এই ব্যাপারে ১নং হাটশ হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম সম্পা মাহমুদ জানান, শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতু অকেজো লাইট গুলো দ্রুত সংস্করণের জন্য সেতু সংশ্লিষ্ট উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে আশা করি খুব শীঘ্রই উক্ত জনদুর্ভোগ নিরসন হবে। হরিপুর বাসীদের দাবি যত দ্রুত সম্ভব শেখ রাসেল হরিপুর কুষ্টিয়া সংযোগ সেতুর আলো স্বল্পতা দূর করার জন্য হাই ভোল্টেজের আলোর বাতির ব্যবস্থা করা হোক। এবং অকেজো লাইট গুলো সংস্করণ করে দ্রুত জনদুর্ভোগ নিরসন করার জন্য কার্যকর ব্যবস্থা নেওয়া হোক।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!