সোমবার, ২৫ জানুয়ারী ২০২১, ১১:১৭ অপরাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

হবিগঞ্জে নিষিদ্ধ নোট-গাইড বইয়ের রমরমা বানিজ্য

Reporter Name
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ১১ মার্চ, ২০২০
  • ১৩১ বার নিউজটি পড়া হয়েছে


মোঃ সেলিম উদ্দিন : হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার সিন্ডিকেটে রমরমা চলছে নিষিদ্ধ নোট-গাইড বইয়ের বানিজ্য। বছরের শুরুতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বই বিতরণ করে সরকার। একইসঙ্গে বাংলা ও ইংরেজি ব্যাকরণ বই দেয়া হয়। ফলে অতিরিক্ত গাইড কেনার প্রয়োজন হয় না। কিন্ত এক শ্রেনির অসাধু শিক্ষক বই না পড়িয়ে গাইড বই পড়ানোর প্রতি বেশি ঝুঁকছেন। এতে সৃজনশীল মেধা বিকাশে বাদাগ্রস্ত হচ্ছে বলে মনে করছেন সচেতন মহল। উপজেলা বিভিন্ন বইয়ের দোকানে প্রকাশে বিক্রি হয় এসব গাইড বই। নবীগঞ্জ উপজেলায় প্রাথমিক,মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক মিলে প্রায় দু-শতাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। এইসব প্রতিষ্ঠানের এক শ্রেনির শিক্ষক বিভিন্ন প্রকাশনীর বিক্রয় প্রতিনিধির সঙ্গে মিলিত হয়ে গাইড বই কিনতে শিক্ষার্থীদের বাধ্য করছেন। এমন কি দোকান মালিকদের সহযোগিতায় ঘড়ে উঠছে একটি সিন্ডিকেট। একাধিক শিক্ষার্থী জানায়, কিছু অসাধু শিক্ষক এর কথা মত গাইড না ক্রয় করলে টেস্ট পরিক্ষায় কমন আসবে না। এছাড়াও পরীক্ষায় ব্যবহারিক নম্বর কম দেয়া টেস্ট পরিক্ষায় বিভিন্ন ঝামেলা করা হয়। নবীগঞ্জ বাজারের উসমানী রোডে সুজন লাইব্রেরি, ঐকই মার্কেটের রুপক লাইব্রেরি, নবীগঞ্জ জে কে সরকারী উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে রিয়াজ লাইব্রেরি, উসমানী রোডে আল-হেরা লাইব্রেরি, আউশকান্দি র.প.উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে কলেজ লাইব্রেরি সহ সকল লাইব্রেরিতে দেখা গেছে লেকচার, ইন্টারনেট,পাঞ্জেরী, দিকদর্শন,আলফা, নতুন কড়িঁ সহ বিভিন্ন প্রকাশনীর বই বিক্রি হচ্ছে। গাইড কিনতে আসা এক অবিভাবক জানান,বাধ্য হয়ে ওই গাইড কিনতে হচ্ছে। বছরের শুরুতে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীদের বিনামূল্যে বই বিতরণ করে সরকার। একইসঙ্গে বাংলা ও ইংরেজি ব্যাকরণ বই দেয়া হয়। ফলে অতিরিক্ত গাইড কেনার প্রয়োজন হয় না। কিন্ত এক শ্রেনির অসাধু শিক্ষক বই না পড়িয়ে গাইড বই পড়ানোর প্রতি বেশি ঝুঁকছেন। এতে সৃজনশীল মেধা বিকাশে বাদাগ্রস্ত হচ্ছে বলে মনে করছেন সচেতন মহল।নবীগঞ্জ উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোঃ সাদেক হোসেন বলেন, গত বছর ভ্রামমান আদালত এই সব নোট-গাইট বিক্রেতা দের জরিমানা সহ সকল নোট- গাইট জব্দ করেছিল এখন আবার অতি তারাতাড়ি অসাধুু নোট-গাইট বিক্রেতা দের আইন এর আওতায় আনা হবে।নবীগঞ্জ উপজেলা নিবার্হী অফিসার বিশ্বজিত কুুুুমার পাল বলেন, সরকারী নীতিমালা লঙ্ঘনকারী অসাধুতা নোট-গাইট বিক্রেতাদের আইননুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!