শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৮:৫১ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে, ৭বছরের শিশুকে পুকুরের পানিতে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়ে হত্যার চেষ্টা

জীবন মাহমুদ ডাবলু স্টাফ রিপোর্টার
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১১ জুন, ২০২০
  • ১১৫ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

 

পাংশা থানায় মামলা দায়ের। পূর্ব শত্রুতার জের ধরে
রাজবাড়ি জেলার, পাংশা উপজেলার বাহাদুরপুর ইউনিয়নের মেঘনা গ্রামের নজরুল ইসলাম দুখুর শিশু বাচ্চা রাতুল নামের ৭ বছরের একটি শিশুকে একই গ্রামের রমযান আলী পিতা – ওমর আলী বাড়ির পার্শ্ববর্তী পুকুরের পানিতে ধাক্কা মেরে ফেলে দিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এতে শিশুটির পিতা- নজরুল ইসলাম ঘটনাটি রমজান প্রমানিকের বাড়িতে বলতে গেলে রমযান প্রমানিক সহ তাদের বংশের লোকজন তাকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মারাত্মক ভাবে আঘাত করলে নজরুল ইসলামক গুরুতর আহত হোন পরে নজরুল ইসলাম দুখু কে ইস্থানীয়রা উদ্ধার করে পাংশা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা করে। পরে নজরুল ইসলামের স্ত্রী বাদী হয়ে রমজান আলী প্রমানিক পিতা – ওমর আলী প্রমানিক, ওমর আলী প্রমানিক পিতা – মৃত নিজামুদ্দিন প্রমানিক, সোহাগ প্রমানিক পিতা- আহেদ প্রমানিক, চোসুর প্রমানিক পিতা- নিজামুদ্দিন প্রমানিক,শাহাদাত প্রমানিক পিতা মৃত আজিজ উদ্দিন উভয় সাং মেঘনা থানা পাংশা জেলা রাজবাড়ি, সহ ১০ জনকে আসামী করে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার বিবরন ও এলাকাবাসীর সুত্রমতে জানাযায়, নজরুল ইসলাম শিশুপুত্র রাতুল পুকুর পাড়ে বসে খেলতে ছিল, নজরুল ইসলামের পরিবারের সাথে রমযান আলী প্রমানিকের পরিবারের মধ্যে অনেক দিন ধরে জমি জমা বিষয় নিয়ে মন মালিন্য চলতে ছিল তাই রমযান আলী প্রমানিক সুযোগ বুঝে নজরুলের ৭ বছরের শিশু রাতুলকে পানিতে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয়। পুকুরের পাশ দিয়ে পথচারী যাওয়ার সময় বিষয়টি দেখতে পেয়ে ভিকটিম রাতুলকে পুকুরের পানি থেকে ডুবা অবস্থায় উঠিয়ে, রমযান প্রমানিক কে ধরতে গেলে রমযান দৌড় দিয়ে পালিয়ে যায়। ভিকটিম শিশুর পিতা – নজরুল বিষয়টি পথচারী কাছ থেকে জানতে পেরে ১নং আসামি রমযান আলী প্রমানিকের পরিবারকে বলতে গেলে ২ নং আসামি রমযান আলী প্রমানিকের পিতা- ওমর আলী প্রমানিক উপরক্ত আসামীগনকে নজরুল ইসলামকে মারতে হুকুম দিলে আসামিগন ভিকটিম শিশুর পিতা – নজরুল ইসলামকে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে বেধরক মারপিট করতে থাকে এই অবস্থায় নজরুল ইসলামের বৃদ্ধা চাচী ও প্রতিবেশীরা উদ্ধার করতে আসলে আসামীগন তাদেরকেও মারপিট করে। পরে নজরুল ইসলামকে মৃত ভেবে আসামীগন চলে যায়। এমতাবস্থায় নজরুল ইসলামকে উদ্ধার করে পাংশা হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। আসামীগন এখন মামলা তুলে নেওয়ার জন্য বাদী বৃষ্টি খাতুন সহ তার পরিবার কে হুমকি ধামকি দিচ্ছে। তাই বাদী ও এলাকাবাসী আসামীগনকে ধরে দৃষ্টান্ত মূলক শাস্তির দাবি করছে। তারিখ-১১/০৬/২০২০ ইং

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!