শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৭:৫২ পূর্বাহ্ন
ঘোষনা :
জেকে টিভি'র জন্য জেলা ও উপজেলা প্রতিনিধি নিয়োগ দেওয়া হবে।  আগ্রহীরা ছবি ও যোগ্যতাসহ জীবন বৃত্তান্ত (সি.ভি)  পাঠান। ই-মেইল: jktv1401@gmail.com

গাংনীতে প্রকৌশলী ও ঠিকাদারের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন, কাজের মান নিয়ে এমপির ক্ষোভ

মেহেরপুর প্রতিনিধি :
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ২৭ জুন, ২০২০
  • ৫৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে

ধারাবাহিক প্রতিবেদনের ২য় পর্বঃমেহেরপুরের গাংনীতে নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে রাস্তা নির্মানের অভিযোগে ঠিকাদার ও প্রকৌশলীর বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসি।

আজ শনিবার দুপুর ১২ টায় গাংনী উপজেলার নওদাপাড়া এলাকায় মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করে এলাকাবাসি। শুক্রবার রাস্তা নির্মানে অনিয়ম শিরোনামে সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর বেশ কয়েকটি রাস্তা ও সেতুর নির্মান কাজ পরিদর্শনে যান সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন।

এসময় তার সাথে ছিলেন মেহেরপুরের নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান ও গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখ সহ আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ।

সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকনের সামনেই নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান ও গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল করে তাদের উপর চড়াও হয় নওদাপাড়ার বিক্ষুদ্ধ জনগন। পরে সংসদ সদস্য’র হস্তক্ষেপে পরিবেশ শান্ত হয়। এসময় ঠিকাদার ও গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার পাশাপাশি পুনরায় রাস্তা ঠিক করে দেওয়ার প্রতিশ্রতি দিয়ে দ্রত ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান ।

স্থানীয়দের দাবি নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান ও গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখের অর্থবানিজ্য করার কারনেই নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করছে ঠিকাদার। নওদাপাড়া গ্রামের জাহাঙ্গীর আলম ও নুরেদ হোসেন সহ স্থানীয়রা জানান, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করার কারনে কার্পেটিং উঠে যাচ্ছে। এ নিয়ে প্রতিবাদ করলে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের লোকজন হুমকি দিচ্ছে। কর্তৃপক্ষ যথাযথ তদারকি না করার কারনে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান মনগড়া কাজ করছে। অবিলম্বে নিম্নমানের সামগ্রী তুলে সরকারী বিধি মোতাবেক কাজ করার দাবি করেন তারা।

এদিকে বামুন্দী-মটমুড়া সড়কে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার ও রাস্তার পাশে মাটি না দেওয়ার কারনে ক্ষোভ প্রকাশ করে স্থানীয়রা। স্থানীয়দের দাবি নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান ও গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখকে ম্যানেজ করে ঠিকাদার মকলেচ হোসেন ইচ্ছামত কাজ করছে। তবে মকলেচ দাবি করেন তার কাজ ভালো হচ্ছে।

সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন বলেন, বামুন্দী-নওদামটমুড়া সড়কে পিচের মান অত্যান্ত নিম্নমানের। রাস্তার পশে মাটিও দেয়া হয়নি। একারনে দ্রত সময়ের মধ্যে রাস্তাটি নষ্ট হয়ে যাবে তাই কাজ বন্ধ করার জন্য নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান ও গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখের বলেছি। তিনি আরো বলেন ঠিকাদাররা সরকারী টাকা লুটপাট করে খেয়ে ফেলছে এটা দু:খ জনক। কোন ভাবেই অনিয়ম হতে দেয়া হবেনা।

এছাড়া সাহেবনগর-কাজিপুর সড়ক ব্যাপক অনিয়ম হচ্ছে। রাস্তার পার্শে একফিটও মাটি নেই। রাস্তায় যতই পিচ দেয়া হোকনা কেন বৃষ্টি হলেই ভেঙ্গে যাবে। তাই ঠিকাদারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আহবান জানান তিনি। তিনি বলেন অনিয়মের বিষয়টি এলজিআরটি মন্ত্রী ও প্রধান প্রকৌশলীকে অবগত করা হবে। তিনি আরো বলেন ৪০টি মত বিদ্যালয় ভবন নির্মান চলছে সেগুলোতে চলছে ব্যাপাক কারচুপি চলছে বলে মন্তব্য করেন।

কয়েকটি রাস্তা সরেজমিন পরিদর্শন করে সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সাহিদুজ্জামান খোকন বলেন,রাস্তা নির্মানে নানা অনিয়ম রয়েছে একারনে কাজ বন্ধ রাখতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। জনগনের ট্যাক্সের টাকাই রাস্তা তৈরি করা হচ্ছে তাই রাস্তার কাজ বুঝে নেওয়ার দায়িত্ব জনগনের আছে। জনগন সচেতন রয়েছে ও প্রতিবাদ করেছে বলেই অনিয়মের বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ সহ গণমাধ্যমে উঠে এসেছে। অনিয়মের বিষয়টি কর্তৃপক্ষের চোঁখে আঙ্গুল দিয়ে দেখিয়ে দেওয়ার জন্য স্থানীয়দের ধন্যবাদ জানান তিনি। তিনি আরো বলেন দামি ঠিকাদারের প্রয়োজন নেই। সেই ঠিকাদারের প্রয়োজন যে সরকারী বিধি মোতাবেক কাজ করবে।

নির্বাহী প্রকৌশলী মো: আসাদুজ্জামান,কয়েকটি রাস্তার কাজ নিম্নমানের হয়েছে। বিষয়টি সকলের নজরে এসেছে একারনে ঠিকাদার ও প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে প্রশাসনিক ব্যবস্থা নেয়া হবে। এছাড়া যে সমস্যা গুলো আছে সেগুলো সংশোধন করা হবে।

সরেজমিন ঘুরে দেখা গেছে, বামুন্দী-মটমুড়া, কাজিপুর-নওদাপাড়া, সহড়াতলা-পলাশীপাড়ার রাস্তার কাছে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠে। ঠিকাদার প্রতিষ্ঠানের নাম ও রাস্তার পরিমান ও কত টাকা ব্যায়ে নির্মান করা হচ্ছে এমন তথ্য চাইলে তথ্য দিতে অপারগতা প্রকাশ করে গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখ।

গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখ জানান, এ কাজের তদারকির দায়িত্বে যিনি ছিলেন তাকে শোকজ করা হবে।

স্থানীয়দের অভিযোগ গাংনী উপজেলা প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখ যোগদানের পর থেকে বিভিন্ন সড়ক নির্মানে চলছে অনিয়ম। তদারকি না করা ও অনৈতিক সুবিধা নেওয়ার কারনেই নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে কাজ করছে কতিপয় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান।

গাংনী উপজেলা ঠিকাদার সমিতির একজন সদস্য জানান,ঠিকাদার বৃন্দ প্রকৌশলীদের হাতে জিম্মি প্রকাশ্য মুখ খুললে ফাইল আটকিয়ে দেবে। তবে ঠিকাদার সমিতির এক নেতা জানিয়েছে,প্রকৌশলী গোলাপ আলী শেখ যোগদানের পর থেকে নানা অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে তার বিরুদ্ধে।

নিউজটি শেয়ার করুন..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....
© All rights reserved © jknewstv.com
Developed By Rinku
themes254654365664
error: Content is protected !!